ফুচকা -চটপটি খেয়ে হাসপাতালে ২৫ শিক্ষার্থী

শাকরা হাইস্কুলের ছাত্রীরা ফুচকা খেয়ে ২৫ জন ছাত্রী বিষক্রিয়ায় আক্রান্ত। লাকসাম সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল সকাল ১০টায় স্কুল প্রাঙ্গণে এ ঘটনাটি ঘটে। অপরদিকে স্কুল কর্তৃপক্ষ ৩টি ফুচকার দোকান মালিকদের আটক করে রাখে। উক্ত ঘটনা স্কুলের প্রধান শিক্ষক আহম্মদ উল্যাহ ঘটনাটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানান। হাসপাতাল ও স্কুলের প্রধান শিক্ষক জানায়, শাকরা আর.এ হাইস্কুলের পাশে গত ২ দিন ধরে শাকরা দরবার শরীফে ওরস চলছিল। ওরস উপলক্ষে

দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে হরেক রকম দোকানসহ ফুচকার দোকান স্কুলের সামনে বসে। স্কুল শুরু হওয়ার পূর্বে ৩টি দোকানে শিক্ষার্থীরা ফুচকা খায়। সকাল ১০টায় ক্লাস শুরু হওয়ার পর শ্রেণিকক্ষে একটি মেয়ে অসুস্থবোধ করে। এর পর পর একে একে অন্য ছাত্রীরা অসুস্থ হয়ে পড়ে। স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকারা ঘটনাটি প্রধান শিক্ষককে জানায়। পার্শ্ববর্তী শাকরা বাজার থেকে ৩ জন চিকিৎসককে স্কুলের এনে ছাত্রীদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া শুরু করে। আক্রান্ত ছাত্রীরা প্রথমে বমি, পেট ব্যথা ও মাথা

ব্যথা শুরু করে। শিক্ষার্থীদের অবস্থা গুরুতর দেখে দ্রুত লাকসাম সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ভর্তিকৃত ছাত্রীরা হলো ৭ম শ্রেণির মুক্তা, বৃষ্টি, আখি, শাহিদা, সুফিয়া, তাছপ্রিয়া, সানজিদা, লাভলী, ইয়াছমিন, আফসানা, শাহনাজ, তাহমিনা, নুরজাহান, মহিমা, তাসলিমা, ৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থী শাহিদা, ১০ম শ্রেণির শিক্ষার্থী ইয়াছমিন , অথরা, ছাদিয়া, রাত্রি আক্তার, শারমিন, তুহিনাসহ ২৫ জনকে ভর্তি করা হয়েছে। ভর্তিকৃত ছাত্রীদের চিকিৎসক ও নার্সরা দ্রুত চিকিৎসা সেবা দিতে শুরু করে। এ নিয়ে অভিভাবকদের সঙ্গে কাকে আগে দেখবে ডাক্তার এ নিয়ে তর্কবিতর্ক সৃষ্টি হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *